কি খেজুর খাওয়া ভালো এবং সবচেয়ে পুষ্টিকর খেজুর কোনটি?

গর্ভাবস্থায় খেজুর খাওয়ার উপকারিতা

গর্ভবতী মায়েদের জন্য এক্সট্রা  পুষ্টি  দরকার । তাই তাদের  ড্রাই এর তালিকায়  এমন কিছু খাবার রাখা উচিত যাতে প্রচুর পরিমাণ পুষ্টি উপাদান থাকে ।  আজকে আমরা এমনই একটি পুষ্টি  সমৃদ্ধ ফল খেজুর খাওয়ার উপকারিতা সম্পর্কে  জানবো । 

গর্ভাবস্থায় খেজুর খাওয়ার উপকারিতা

গর্ভাবস্থায় খেজুর খাওয়ার  উল্লেখযোগ্য বেশ কয়েকটি উপকারিতা রয়েছে । খেজুরে রয়েছে   আইরন, ভিটামিন কে, পটাশিয়াম ও ম্যাগনেসিয়াম । আপনারা হয়তো জানেন ১০০ গ্রাম আয়রনে রয়েছে ২৭৭ কিলো ক্যালোরি শক্তি , ১.৮ গ্রাম  প্রোটিন এবং ৬.৭ গ্রাম ফাইবার । তাই গর্ভবতী মায়েরা খেজুর খেলে ছয়টি গুরুত্বপূর্ণ উপকার পেতে পারে । 

১, শক্তির জোগান । গর্ভবতী মায়েদের স্বাভাবিকের তুলনায় বেশি শক্তির প্রয়োজন তাই গর্ভবতী মায়েরা খেজুর খেয়ে খুব সহজেই শক্তি অর্জন করতে পারে ।

 ২, গর্ভের বাচ্চার  হাড় ও দাঁত  গঠনসহ শরীর বৃদ্ধিতে কার্যকর ।  ম্যাগনেসিয়াম  গর্ভের বাচ্চার  হাড় ও দাঁত গঠনের জন্য এক অন্যতম উপাদান ।

৩, জন্মগত সমস্যা । বোবা,  কালা, রোগা, বা প্রতিবন্ধী  রোগের মত সমস্যা গুলোর সমাধানে অনেক ভূমিকা পালন করে ।

 ৪, শরীরের ভারসাম্য বজায় রাখে । পটাশিয়াম শরীরের রক্তচাপকে নিয়ন্ত্রণ করে এবং  পেশী  গুলোর বাধা এরাই।

৫, কোষ্ঠকাঠিন্য দূর করে।  গর্ভাবস্থায় কোষ্ঠকাঠিন্য রোগে ভুগেন নাই এমন মা খুবই কম আছে । কেননা  সন্তান গর্ভধারণকালে শরীরের  হরমোনের পরিবর্তন  হয়  এ কারণে কোষ্ঠকাঠিন্য দেখা দেয় ।  খেজুরে রয়েছে ফাইবার যা হজম প্রক্রিয়া সহজ করে ও কোষ্ঠকাঠিন্য দূর করে । 

 ৬, শিশুর জন্য ভিটামিন কে সরবরাহ করে । সাধারণত বাচ্চারা খুব কম পরিমাণ ভিটামিন কে নিয়ে জন্মায় । খেজুর খেলে শিশুদের শরীরের ভিটামিন কে এর ঘাটতি পূরণ হয় । 

আরো জানতে ক্লিলিক করুন: লিচু ফুলের মধুর উপকারিতা কি কি এবং লিচু ফুলের মধু চেনার উপায়

গর্ভবতী অবস্থায় খেজুর খেলে কি হয়?

খেজুরের গুনাগুন কি?

খেজুরের গুনাগুন কি?

  • শক্তির জোগান বাড়ায়
  • গর্ভের বাচ্চার  হাড় ও দাঁত  গঠনসহ শরীর বৃদ্ধি করে
  • জন্মগত সমস্যা যেমনঃ বোবা,  কালা, রোগা, বা প্রতিবন্ধী  রোগের মত সমস্যা গুলোর সমাধানে অনেক ভূমিকা পালন করে ।
  • শরীরের ভারসাম্য বজায় রাখে
  • কোষ্ঠকাঠিন্য দূর করে
  • শিশুর জন্য ভিটামিন কে সরবরাহ করে

সবচেয়ে পুষ্টিকর খেজুর কোনটি?

বছরের অন্যান্য সময়ের তুলনায় রমজান মাস এলে খেজুরের চাহিদা বেড়ে যায় । খেজুর স্বাদে যেমন সুস্বাদু এর স্বাস্থ্য উপকারিতা ও অনেক বেশি । জানা যায় সারা বিশ্বে প্রায় তিন হাজার প্রজাতির খেজুর রয়েছে । এর মধ্যে বাংলাদেশের বাজারে ১০০টিরও বেশি প্রজাতির খেজুর পাওয়া যায় । যার মধ্যে মাব্রুন, শিকারি, খুরমা ,  মারিয়াম, মাশরুক ও আজুয়া খেজুর বিশেষভাবে উল্লেখযোগ্য । তবে বিশ্বের মধ্যে সবচেয়ে দামি খেজুর হলো আজওয়া খেজুর । এর মধ্যেও আরো অনেক পদ আছে ।  সৌদি আরব থেকে আসে আজুয়া খেজুর এর দাম ৮০০ টাকা থেকে ২৫০০ টাকা পর্যন্ত হয়ে থাকে । মদিনায় এ খেজুরের ফলন হয় বেশি ।  আজও খেজুর কালো ও মাঝারি আকৃতির হয়ে থাকে ।

সবচেয়ে পুষ্টিকর খেজুর কোনটি
আজওয়া খেজুরের উপকারিতা

আজওয়া খেজুর কালো ও মাঝারি আকৃতির হয়ে থাকে । পুষ্টি ও মানব বৃদ্ধিতে সবচেয়ে ভালো খেজুরগুলোর  তালিকায় প্রথম সারিতে রয়েছে মদিনা শরীফে ফলিত আজুয়া খেজুর । 

এতে রয়েছে । 

  • প্রোটিন
  •  ক্যালরি
  •  আইরন
  •  ফাইবার 
  • ফলিক এসিড
  •  পটাশিয়াম
  •  ম্যাগনেসিয়াম 
  • ক্যালসিয়াম
  •  ফসফরাস সহ আরো অনেক উপাদান

কি খেজুর খাওয়া ভালো?

 গবেষকদের মধ্যে বিশ্বের সবথেকে  ভালো মানের খেজুরগুলোর মধ্যে উল্লেখযোগ্য আজুয়া খেজুর, মরিয়ম খেজুর ।  এবং এ দুটি খেজুর বাংলাদেশের বাজারে সচরাচর পাওয়া যায় ।

খেজুর খাওয়ার উপকারিতা কি কি?

প্রতিদিন সকালে এবং রাতে দুই থেকে চারটি করে খেজুর খেলে অল্প কিছুদিনের মধ্যেই শরীরে অনেক পরিবর্তনের দেখা মিলবে ।  এর মধ্যে উল্লেখযোগ্য হল । 

  • দুর্বলতা দূর করে দেহকে করে তুলে অতি শক্তিশালী
  • দাঁত ও হাড় মজবুত করে
  •  চেহারার গঠন সুন্দর করে এবং ত্বকের উজ্জ্বলতা বাড়িয়ে তুলে
  •  কোষ্ঠকাঠিন্য দূর করে 
  • হজম শক্তি বৃদ্ধি করে
খেজুর ভেজানো পানি খেলে কি হয়?
খেজুর ভেজানো পানি খেলে কি হয়?

খেজুর ভেজানো পানি কে হাদিসের ভাষায় নাবিস বলা হয় ।  এ নাবিস  (খেজুর ভেজানো পানি) রাসুল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম খেতে অনেক পছন্দ করতেন । এতে অনেক উপকারও রয়েছে । তা যেন অধিক সময় ধরে খেজুর ভেজানো পানি না হয় । কারণ অধিক সময় খেজুর পানিতে ভিজিয়ে রাখলে ওই  ওই পানি মাদক দ্রব্যে পরিণত হয় ।  আর মাদক স্বাস্থ্যের জন্য কখনো উপকারী  হতে পারে না । দুই থেকে চার ঘন্টা ভিজিয়ে রাখা খেজুরের পানিকে নাবিস বলা হয় ।  এটি খাওয়া সুন্নত ।  এবং  এটি পান করার দ্বারা শরীরের অনেক পরিবর্তন ঘটায় । 

আরো জানোনঃ টমেটোতে কি কি ভিটামিন আছে এবং টমেটোর পুষ্টিগুণ কতটুকু

 উক্ত আলোচনা থেকে আরো কোন বিষয়ে জানার থাকলে আমাদের কমেন্ট বক্সে জানানোর অনুরোধ রইলো ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *