৪ রাকাত নফল নামাজ পড়ার নিয়ম এবংযোহরের নামাজ কত রাকাত ও কি কি?৪ রাকাত নফল নামাজ পড়ার নিয়ম এবংযোহরের নামাজ কত রাকাত ও কি কি?
কোন রাকাত ফরজ?

কোন রাকাত ফরজ?

পাঁচ ওয়াক্ত ফরজ নামাজের প্রত্যেক রাকাতই ফরজ। তবে, ফজর নামাজের প্রথম রাকাতটি আরও বেশি গুরুত্বের। কেননা, রাসূলুল্লাহ (সা.) বলেছেন, “মুনাফিকদের উপর ফজর ও এশার নামায অপেক্ষা অধিক ভারী নামায আর নেই। যদি তারা এর ফযীলত ও গুরুত্ব জানত, তাহলে হামাগুড়ি দিয়ে বা পাছার ভরে অবশ্যই (মসজিদে) উপস্থিত হত।” (বুখারী, হাদিস: ৫৯৯)

অন্যান্য নামাজের ক্ষেত্রেও প্রথম রাকাতটি আরও বেশি গুরুত্বের। কেননা, প্রথম রাকাতেই তাকবিরুল ইহরাম, সূরা ফাতিহা ও অন্য কোনো সুরা পড়া, রুকু, সেজদা, তাশাহুদ ও দুরুদ ইত্যাদি ফরজ ইবাদতগুলো পালন করা হয়।

তবে, বিশেষ কোনো কারণে যদি কোনো রাকাত ছুটে যায়, তাহলে সে রাকাত পরে পড়া আবশ্যক। যেমন, যদি কোনো ব্যক্তি ফজর নামাজের প্রথম রাকাত পড়ে না থাকে, তাহলে তাকে পরে পড়তে হবে।

যোহরের নামাজ কত রাকাত ও কি কি?


যোহরের নামাজ মোট ১০ রাকাত। এর মধ্যে চার রাকাত সুন্নাত, চার রাকাত ফরজ ও দুই রাকাত সুন্নাত।
যোহরের নামাজের রাকাতগুলো হলো:

চার রাকাত সুন্নাত: যোহরের নামাজের আগে চার রাকাত সুন্নাত পড়া উত্তম। এগুলোকে যোহরের সুন্নাতে মুয়াক্কাদা বলা হয়।
চার রাকাত ফরজ: যোহরের নামাজের মূল হলো চার রাকাত ফরজ। এগুলোকে যোহরের ফরজ বলা হয়।
দুই রাকাত সুন্নাত: যোহরের নামাজের পর দুই রাকাত সুন্নাত পড়া উত্তম। এগুলোকে যোহরের সুন্নাতে মুআক্কাদা বলা হয়।

আরো জানোনঃ যোহরের নামায আসরের নামাজের সময় শুরু

জোহরের নামাজ কিভাবে পড়তে হবে?

যোহরের নামাজের আগের চার রাকাত সুন্নাত:

নামাজের নিয়ত করা:
নিয়ত করছি আল্লাহর পক্ষ থেকে যোহরের চার রাকাত সুন্নাত নামাজের।

তাকবীরে তাহরীমা উচ্চারণ করা:
আল্লাহু আকবার।
দু হাত বুকের উপর রাখা:

সূরা ফাতিহা পড়া:

কোনো সুরা বা আয়াত পড়া:

রুকু করা:

রুকুতে তিনবার “সুবহানা রাব্বিয়াল আযীম” পড়া:

রুকু থেকে উঠে দাঁড়ানো:

সামিআল্লাহু লিমান হামিদা পড়া:

সামিআল্লাহু লিমান হামিদ।
রাব্বানা লাকাল হামদ পড়া:
সেজদা করা:

সেজদায় তিনবার “সুবহানা রাব্বিয়াল আলা” পড়া:

সুবহানা রাব্বিয়াল আলা।
সেজদা থেকে মাথা উঠিয়ে বসতে পড়া:

পূণ রায় সেজদা করা:

সেজদায় তিনবার “সুবহানা রাব্বিয়াল আলা” পড়া:

দুই সেজদার থেকে উটে বসা:

আত্তাহিয়্যাতু পড়া:

আত্তাহিয়্যাতু লিল্লাহি ওয়াস্সালাওয়াতু ওয়াত্তাইয়িবাতু। আসসালামু আলাইকা আইয়্যুহান নাবিয়্যু ওয়া রহমাতুল্লাহি ওয়া বারাকাতুহু। আসসালামু আলাইনা ওয়া আলা ইবাদিল্লাহিস সালিহিন। আশহাদু আল-লা ইলাহা ইল্লাল্লাহু ওয়া আশহাদু আন্না মুহাম্মাদান আব্দুহু ওয়া রাসুলুহু।

দুরুদ শরীফ পড়া:

দুওয়ায়ে মাছুরা পড়া।
আল্লাহুম্মা জলাম তু নাফছি।

সালাম ফিরে ডান দিকে ফিরে বসা:

সালাম ফিরে বাম দিকে ফিরে বসা:

যোহরের নামাজের চার রাকাত ফরজ:

চার রাকাত সুন্নাতের মতোই পড়া।
যোহরের নামাজের পরের দুই রাকাত সুন্নাত।

চার রাকাত সুন্নাতের মতোই পড়া।
যোহরের নামাজের নিয়ত।

যোহরের নামাজের নিয়ত মুখে উচ্চারণ করে পড়া উত্তম। তবে, মনে মনেও নিয়ত করা যায়।

যোহরের নামাজের নিয়ত:

নিয়ত করছি আল্লাহর পক্ষ থেকে যোহরের চার রাকাত সুন্নাত নামাজের।

যোহরের নামাজের দোয়া পড়া সুন্নত।

যোহরের নামাজের দোয়া:

আল্লাহুম্মা ইন্নি আসআলুকা ইয়া আল্লাহু, বিনিআমাতিকাল্লাতি আফাদাইতানা বিহা, আন তাওফীকা লিকওলি খাইরিন, ওয়া তাক্বওয়াতা মিন কুল্লি সুইয়্যিন।

অর্থ:
হে আল্লাহ, আমি তোমার নিয়ামত সমূহের দ্বারা তোমার কাছে প্রার্থনা করি, যেন তুমি আমাকে সকল ভালো কাজের তাওফিক দাও এবং সকল মন্দ থেকে হেফাজ

আরো জানতে ক্লিক করোনঃ ফজরের নামায। সূর্য ওঠার কত মিনিট পর নামাজ পড়া যায়?

৪ রাকাত নফল নামাজ পড়ার নিয়ম


নফল নামাযের মাঝে আর বাকি নামাযের মাঝে তেমন কোনো পার্থক্য নেয়। তবে কিছু পার্থক্য আছে। যেমনঃ

  • নিয়ত করা।
  • নিয়ত করছি আল্লাহর পক্ষ থেকে ৪ রাকাত নফল নামাজের।
  • ৪ রাকাত নফল নামাজের দোয়া:
  • ৪ রাকাত নফল নামাজের দোয়া পড়া সুন্নত।

দোয়া:

আল্লাহুম্মা ইন্নি আসআলুকা ইয়া আল্লাহু, বিনিআমাতিকাল্লাতি আফাদাইতানা বিহা, আন তাওফীকা লিকওলি খাইরিন, ওয়া তাক্বওয়াতা মিন কুল্লি সুইয়্যিন।

অর্থ:

হে আল্লাহ, আমি তোমার নিয়ামত সমূহের দ্বারা তোমার কাছে প্রার্থনা করি, যেন তুমি আমাকে সকল ভালো কাজের তাওফিক দাও এবং সকল মন্দ থেকে হেফাজত করো।

৪ রাকাত নফল নামাজের অন্যান্য নিয়ম:

  • ৪ রাকাত নফল নামাজ যেকোনো সূরা বা আয়াত দিয়ে পড়া যায়।
  • ৪ রাকাত নফল নামাজে আত্তাহিয়্যাতু ও দুরুদ শরীফ পড়া জরুরি।
  • ৪ রাকাত নফল নামাজে সালাম ফিরানো জরুরি
  • আর বাকি সব আগের মত করে পড়লেয় হবে।
যোহরের ৪ রাকাত সুন্নত না পড়লে কি হয়?

যোহরের ৪ রাকাত সুন্নত না পড়লে কি হয়?


যোহরের ৪ রাকাত সুন্নত না পড়লে কোনো গুনাহ হবে না। তবে, এটি সুন্নাতে মুয়াক্কাদা, অর্থাৎ অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ সুন্নত। রাসূলুল্লাহ (সা.) নিয়মিত এ নামাজ আদায় করতেন এবং এ নামাজের গুরুত্ব সম্পর্কে সাহাবীদেরকে বলেছেন।

হাদিসে এসেছে,

হযরত আলী (রা.) বলেন, রাসূলুল্লাহ (সা.) যোহরের আগে চার রাকাত সুন্নত ও জোহরের পর দুই রাকাত সুন্নত পড়তেন।

হযরত উম্মে হাবিবা (রা.) বলেন, “রাসূলুল্লাহ (সা.) বলেছেন, ‘যে ব্যক্তি যোহরের আগে চার রাকাত সুন্নত ও জোহরের পর দুই রাকাত সুন্নত আদায় করবে, সে জাহান্নামের আগুন থেকে নিরাপদ থাকবে।”

সুতরাং, যোহরের ৪ রাকাত সুন্নত না পড়লে কোনো গুনাহ হবে না, তবে এ নামাজ আদায় করা কর্তব্য। এ নামাজ আদায় করলে অনেক ফজিলত লাভ করা যায়।

জোহরের নামাজের সুন্নত কত রাকাত?

জোহরের নামাজের সুন্নত মোট ৬ রাকাত। এর মধ্যে ৪ রাকাত পূর্বে এবং ২ রাকাত পরে পড়া হয়।

৪ রাকাত পূর্বে পড়া সুন্নতকে সুন্নাতে মুয়াক্কাদা বলা হয়। অর্থাৎ এটি অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ সুন্নত। রাসূলুল্লাহ (সা.) নিয়মিত এ নামাজ আদায় করতেন এবং এ নামাজের গুরুত্ব সম্পর্কে সাহাবীদেরকে বলেছেন।

হাদিসে এসেছে,

হযরত আলী (রা.) বলেন, রাসূলুল্লাহ (সা.) যোহরের আগে চার রাকাত সুন্নত ও জোহরের পর দুই রাকাত সুন্নত পড়তেন।

হযরত উম্মে হাবিবা (রা.) বলেন, “রাসূলুল্লাহ (সা.) বলেছেন, ‘যে ব্যক্তি যোহরের আগে চার রাকাত সুন্নত ও জোহরের পর দুই রাকাত সুন্নত আদায় করবে, সে জাহান্নামের আগুন থেকে নিরাপদ থাকবে।”

২ রাকাত পরে পড়া সুন্নতকে সুন্নাতে গাইরে মুয়াক্কাদা বলা হয়। অর্থাৎ এটি সুন্নত, তবে অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ নয়।

যোহরের নামাজের ৪ রাকাত সুন্নত না পড়লে কোনো গুনাহ হবে না। তবে, এ নামাজ আদায় করা কর্তব্য। এ নামাজ আদায় করলে অনেক ফজিলত লাভ করা যায়।

আসরের নামাজ মোট কত রাকাত। এশার নামাজের সময় শুরু ও শেষ

যোহরের ৪ রাকাত সুন্নত নামাজের নিয়ম

যোহরের ৪ রাকাত সুন্নত নামাজের ফজিলত

যোহরের ৪ রাকাত সুন্নত নামাজে অনেক ফজিলত আছে।

রাসূলুল্লাহ (সা.) বলেছেন, “যে ব্যক্তি যোহরের আগে চার রাকাত সুন্নত ও জোহরের পর দুই রাকাত সুন্নত আদায় করবে, সে জাহান্নামের আগুন থেকে নিরাপদ থাকবে।”

রাসূলুল্লাহ (সা.) আরও বলেছেন, “যে ব্যক্তি যোহরের আগে চার রাকাত সুন্নত আদায় করবে, তার জন্য আল্লাহ তায়ালা দুনিয়া ও আখিরাতে বরকত দান করবেন।”

যোহরের ৪ রাকাত সুন্নত আদায় করলে অনেক নেকি ও সাওয়াব অর্জন করা যায়।

যোহরের ৪ রাকাত সুন্নত নামায আগের নামাযের মত করে পড়লেয় হবে।

আরো পড়ুনঃমাগরিবের নামাজ কয় রাকাত মাগরিবের নামাজের পর কোন সূরা পড়তে হয় 

7 thoughts on “৪ রাকাত নফল নামাজ পড়ার নিয়ম এবংযোহরের নামাজ কত রাকাত ও কি কি?”

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *